ঘাটাইলে পৌর নির্বাচনে আ.লীগ মনোনীত প্রার্থী ভিপি শহীদের প্রচারনা

ঘাটাইলে পৌর নির্বাচনে আ.লীগ মনোনীত প্রার্থী ভিপি শহীদের প্রচারনা



ঘাটাইল প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের ঘাটাইল পৌরসভা নির্বাচন আগামী ২৮ নভেম্বর। নির্বাচনে ইভিএমের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। 

নির্বাচন কেন্দ্র করে মেয়র, সাধারণ এবং সংরক্ষিত কাউন্সিলর প্রার্থীরা ভোটারদের মন জয় করতে অবিরত দিয়ে যাচ্ছেন নানা প্রতিশ্রæতি। তৃতীয় ধাপের এ নির্বাচনের শেষ দিকে জোরেশোরে চলছে প্রচার-প্রচারণা। সেই সঙ্গে সভা-সমাবেশ নিয়মিত করে যাচ্ছেন প্রার্থীরা। পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দিতে অপেক্ষার প্রহর গুনছেন ভোটাররা। ভোটকে কেন্দ্র করে পুরো এলাকায় যেন উৎসবের আমেজ বিরাজ করছে।

এদিকে, বর্তমান মেয়র ও নৌকা প্রতীকের প্রার্থী শহীদুজ্জামান খান তার উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষার জন্য প্রতিশ্রæতিবদ্ধ প্রচারণায় ভোট প্রার্থনা করছেন। দিন-রাত গণসংযোগ, উঠান বৈঠক আর সভা-সমাবেশের মাধ্যমে ব্যস্ত সময় পার করছেন। নৌকা প্রতীকের কর্মী-সমর্থকদের নির্বাচনী প্রচারণায় সরগরম হয়ে উঠেছে বিভিন্ন এলাকা। স্থানীয় আওয়ামী লীগ থেকে শুরু করে উপজেলার নেতাকর্মীরা ঐক্যবদ্ধ হয়ে ভোট চাইছেন। সেই সঙ্গে শিক্ষক, ব্যবসায়ীসহ সর্বস্তরের মানুষ এক জোট হয়ে ভোট চাচ্ছেন নৌকার পক্ষে। তারা তুলে ধরছেন ঘাটাইল পৌরসভার গত পাঁচ বছরের উন্নয়নের চিত্র। পুরুষদের পাশাপাশি নারী নেত্রীরাও তাদের কর্মীদের নিয়ে ছুটছেন ভোটারদের কাছে। গত ৫ বছরে ব্যাপক উন্নয়ন ও মেয়রের আচার আচরণে মুগ্ধ পৌরবাসী। যার কারণে সকল শ্রেণী পেশার ভোটাররা চান তিনিই আবার পৌরবাসীর সেবা করুক। এজন্য সকলেই শহীদুজ্জামান খানকেই বিজয়ী করতে এক জোট হয়েছেন। 

গণসংযোগকালে মেয়র শহীদুজ্জামান খান ভিপি শহীদ বলেন, ‘পৌরবাসীর সকল ভোটাররা আমার সঙ্গে রয়েছেন। আওয়ামী লীগের সকল পর্যায়ের নেতাকর্মীরাও আমার সঙ্গে আছেন। যতটুকু সম্ভব আমি এ পৌরসভার বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করেছি। আমার অসমাপ্ত কাজ ও নতুন বেশ কিছু পরিকল্পনার কাজগুলো সমাপ্ত করতে আমি পৌরবাসীর কাছে সুযোগ চাই। তারা ভোট দিলে আমিই আবার মেয়র নির্বাচিত হবো। নির্বাচিত হওয়ার পর  আগামী ৫ বছরে উন্নয়নের জোয়ারে বাসবে পৌরসভা ইনশাআল্লাহ।’


শেয়ার করুন

-সেবা হট নিউজ: সত্য প্রকাশে আপোষহীন

0comments

মন্তব্য করুন

খবর/তথ্যের বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল আছে এবং আপত্তিজনক নয়- এমন মন্তব্যই প্রদর্শিত হবে। মন্তব্যগুলো পাঠকের নিজস্ব মতামত, সেবা হট নিউজ এর দায়ভার কখনই নেবে না।